Preview
প্রশ্ন করুন
রিলেটেড কিছু বিষয়

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

টপিক বাছাই করুন

+ আরও

( ৮ টি উত্তর আছে )

( ২,৪১৪ বার দেখা হয়েছে)

Lutfun Nessa  সবই অনিশ্চিত, মরিব এটা নিশ্চিত:(

মহাগুরু

আমাদের বাড়ীর  দরজায় ছিল স্কুল! সেখানে ভর্তি করানো হয়েছিল যখন আমি মায়ের বুকের দুধ খাই ( ৬ বসর বয়স পর্যন্ত বুকের দুধ খেয়েছি)! ঘন্টা দুই যাবার পরে টিচারকে বলেছিলাম -- "স্যার আমি বাড়ি যামু,, মায়  কইছে  দুধ না খাইলে প্যাড ব্যাথা অইবে" ! স্যারতো হা হা হা হো হো হো করে হেসে আমায় বাড়িতে যেতে দিলেন! হা হা হা !  এর পর এটা বেশ কিছুদিন আমার ছুটি নেবার এটা  একটা মহা কার্যকরী কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল হা হা হা হা !!!!! যে ঘটনাটি অনেক বড় হয়েও অনেকের মুখে শুনে লজ্জা পেতে হয়েছে!.....  এই প্রশ্নটার উত্তরে নিজের মত সাজিয়ে গুছিয়ে লিখতে পারলামনা -- শুধুই  সত্য ঘটনাটা বললাম! একটু বড় হয়ে স্কুলে না যাওয়ার কোন কারন  থাকলে পালিয়ে গিয়েছি সবার চোখকে ফাঁকি দিয়ে ----------

নিরন্তর শুভ কামনায়.................ধন্যবাদ দীপ্তি:)

জিসান  ঠিক যেভাবে আছি ,এইভাবেই যদি ভালো লাগে,লাগবে!!না হয় আর কিছু বলার নেই !!নিজেকে বদলাতে পারবোনা,যেমন আছি,তেমনি থাকবো !!!

জ্ঞানী

আমার চাচ্চু আমাকে কোলে করে নিয়ে গিয়েছিল স্কুল এ ভর্তি করানোর জন্যে ...সাথে অবস্য আব্বু ছিল ..আর আমি স্কুল এ গিয়ে সবার দিকে তাকিয়ে ছিলাম ..ভেবে পাচ্ছিলামনা এত মানুষ এখানে কি করে ??পরে আব্বুকে জিগ্যেস করলাম ..আব্বু বলল ওরা ও তোমার মত এখানে পড়তে আসছে ..

সরকার মোমেনূর রহমান  ভালোবাসাকে ভালোবাসি

মহাগুরু

আব্বা ঐ স্কুলের শিক্ষক ছিলেন বলে কবে যে স্কুলে ভর্তি করেছিলেন তা জানা হয়নি !!!!! তবে,প্রথম ক্লাশের কথা মনে আছে ! ক্লাশ শুরুর আগে আমি ফার্স্ট বেঞ্চে বসেছিলাম । একটা ছেলে এসে আমাকে সেখান থেকে উঠিয়ে দেয় ! এত্ত বড় অপমান !!!!! সেজো ভাইকে গিয়ে ডেকে আনলাম ! যেখানে অভিযোগ সেখানেই শাস্তি ! ঐ পিচ্চিকে দিল ধরে মার ! প্রথম ক্লাশেই আব্বা ঢুকলেন । ঐ পিচ্চি আব্বার কাছে বিচার দেওয়ায় উনি তো দিলেন ঝাড়ি !!! এখন পর্যন্ত আব্বা আমাদের কারও উপর এমন রাগ করেননি ! পরে দুজনকে কোলাকুলি করালেন এবং একসাথে বসিয়ে দিলেন ! আর আমার ভাইকে দিলেন মার ! কারণ,সে তখন ৩য় শ্রেণিতে পড়ত ! বাসায় এসে দুই ভাইয়ের সে কী কান্না !!!!! পরে আম্মার মধ্যস্থতায় সব কিছু ঠিক হয়ে গেল ! তবে,এর পরে এ পর্যন্ত কখনও ক্লাশে কিংবা ক্লাশের বাইরে কারও সাথে মারমারি করিনি !!!

রোদেলা বসন্ত  এটা জীবন, খেলাঘর নয়...

মহাগুরু

আমাকে আমার দাদি স্কুলে ভর্তি করতে নিয়ে গিয়েছিলো (প্রথমশ্রেনী)। আমাকে এতোগুলো চিপস, বিস্কুট, চকলেট কিনে দিয়ে ছিলো (পটানোর জন্য, খুউউব ভালো ছিলাম কিনা) আর আমার দু হাতে ছিল আচার।আর স্কুলে আসার আগে মা বার বার বলছিলো কাউকে মারবি না, কামড় দিবি না কিন্তু। একটা মটু মহিলা আমার দাদির সাথে কথা বলে আমাদের ক্লাস রুম দেখিয়ে দিলো, দাদি আমাকে ক্লাসের ভেতরে প্রথম ব্যান্চে বসিয়ে দিলেন। আস্তে আস্তে ছেলে মেয়ে বাড়তে থাকলো আর আমাকে প্রথম ব্যান্চ থেকে লাষ্ট ব্যান্চে পাঠিয়ে দিলো। যা হোক আমি আচার খেয়েই প্রথম ক্লাস শেষ করলাম প্রায়।ক্লাস শেষে টিচার রোল কল শুরু করলো তখন আমাকে প্রশ্ন করলো আমার রোল কত, আমিতো আচারের সাথে ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে গেলাম, এইটা আবার কি!! তো কি আর করা স্বপ্রতিভায় উওর দিলাম আমার রোল ৭। ম্যাম অবাক হয়ে রোল কল খাতা দেখলো নাম জিগাস করলো তারপর বললো নতুন ভর্তি? তোমার রোল ১০৭। হা...........হা...........হা...........ক্লাসের সবাই হেসে দিলো আমি আর ক্লাস করলাম না দাদির সাথে চিপস খেতে খেতে চলে এলাম। দাদিকে আর আব্বুকে বুঝাতে সক্ষম হলাম স্কুলটা মোটেই ভালো না ওরা চিমটি দেয় আমি এতটুকু আর ওরা এত বড়.............ই.........ই..........ই.............। আব্বু বললো ঠিক আছে মা এ স্কুলে আর যেতে হবে না। এই হলো আমার প্রথম শ্রেনীতে প্রথম আর শেষ বারের মত ক্লাস করা তারপরতো একটু বড় হই ক্লাস ওয়ানের সব পড়াতো পারতাম তাই টুতে ভর্তি করা হয়।

Shykhul islam  পথিক তুমি পথ হারাইয়াছো????

পন্ডিত

মনে আছে ,আমি কেঁদে কেঁদে স্কুলে গিয়েছিলাম ।

সজিবুল ইসলাম  সত্যে অবিচল

গুরু

বাড়ির পাশেই স্কুল কিন্তু আমি স্কুলে যেতে চাইনি। কারণ যারা বড় ছিল সবাই বলত প্রধান শিক্ষক খুব মারে ......... ক্যান মারে সেটা বুঝতাম না । স্কুলে যাওয়ার সময় হলেই পালাতাম । এক দিন সকাল বেলা আব্বু আমাকে স্কুলে যেতে বলে আমি না করি । বাড়ি থেকে বেড় হয়ে যাই ......... তারপর আব্বু আমাকে দৌর দিয়ে দরে ফেলবে এমন সময় পানিতে লাফ দেই । সাথে আব্বুও লাফ দিল কিন্তু ধরতে পারে না কারণ আমি ডুব দিয়ে দূরে চলে যেতাম । এমনি করতে করতে আমাকে ধরে এমন চুবানি দিল সেই চুবানি খেয়ে স্কুলে যেত রাজি হলাম শর্তসাপেক্ষে যে আমাকে প্রতিদিন ৫ টাকা করে দিতে হবে । স্কুল যাওয়া আসা এবং সবার সাথে পরিচয় হওয়ার পর স্কুল যাওয়া একটা নেশা হয়ে গেল । এ চুবানির কারণে আজ হয়ত আমি বেশতো মেম্বার...... বাবার প্রতি কৃতজ্ঞতা ।;

মুগ্ধ শিশির  নীল পৃথিবীর টকটকে লাল গল্প....

গুরু

ভ্যাঁ ভ্যাঁ করে গিয়েছিলাম ..........

লীনা জাম্বিল  অতি সাধারন

মহাগুরু


অথবা,