Preview
প্রশ্ন করুন

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

আমানুল্লাহ সরকার  নিজেকে আমি খুঁজে নিতে চাই নিজের মত করে।

মহাগুরু

আমাদের দেশে কৈশোরে বা তারুণ্যে এসে যখন একজন ছেলে বা মেয়ে অনুভব করে যে অন্যদের চেয়ে সে খাট তখন তার মধ্যে উচ্চতা সমস্যা নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টি হয়। চলুন কৈশোর বা তারুণ্যে এসে উচ্চতা বৃদ্ধি, এর প্রতিবন্ধকতা ও চিকিৎসা সম্পর্কে জেনে নেই। বৃদ্ধি প্রতিবন্ধকতা যে সকল সমস্যার সৃষ্টি করেঃ ঠিকমতো বৃদ্ধি না হলে একটি শিশু বিভিন্ন ধরনের শারীরিক ও মানসিক সমস্যায় আক্রান্ত হয়। অনেক সময় এই বৃদ্ধি প্রতিবন্ধকতার সঙ্গে যৌবনপ্রাপ্ত না হওয়ার সমস্যাও দেখা দেয়, যা পরবর্তীতে তার বিবাহ, সন্তান ধারণ বা পারিবারিক জীবনকে ব্যাহত করে। এ ছাড়া এই শিশুরা টিজিং ও বুলিংয়ের শিকার হয় বেশি, সমাজে একঘরে হয়ে পড়ে, শিক্ষা বা কর্মক্ষেত্রে অনেক সময় মেধা থাকা সত্ত্বেও পিছিয়ে পড়ে। বৃদ্ধি প্রতিবন্ধকতার চিকিৎসাঃ কৃত্রিম গ্রোথ হরমোন আবিষ্কৃত হওয়ার আগে বামনাকৃতি শিশুদের চিকিৎসা বিপত্তিকর ছিল। কিন্তু বর্তমানে কৃত্রিম গ্রোথ হরমোন সোমাট্রপিন বা নরডিট্রোপিন দিয়ে সাফল্যের সঙ্গে এর চিকিৎসা করা হচ্ছে। বর্তমানে যে কয়েকটি সমস্যায় গ্রোথ হরমোন থেরাপি ব্যবহৃত হয় তা হলো : ১. বৃদ্ধি বাধাগ্রস্ত শিশু যার গ্রোথ হরমোন অপর্যাপ্ত ২. টার্নার সিনড্রোম ৩. কম ওজন ও ছোট আকার নিয়ে ভূমিষ্ঠ শিশু এবং ৪. কিডনি জটিলতায় আক্রান্ত হওয়ার কারণে যাদের বৃদ্ধি বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী একটি নির্দিষ্ট বয়স পর্যন্ত প্রতিদিন রাতে নির্দিষ্ট মাত্রার গ্রোথ হরমোন ইনজেকশন দেয়া হয় এবং পর্যবেক্ষণ করা হয়। গ্রোথ হরমোনের সমস্যা ছাড়া বৃদ্ধি বাধাগ্রস্ত হওয়ার অন্য কোনো কারণ থাকলে সঠিক কারণটি নির্ণয় করে সে অনুযায়ী দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। তবে দুটি বিষয় মনে রাখবেন ১. সঠিক সময়ে রোগ নির্ণয় ও পরামর্শ নিতে হবে ২. যত কম বয়সে চিকিৎসা শুরু করা যায় ততই ভালো ফল পাওয়া যায়। কৈশোর বা তারুণ্যে এসে উচ্চতা বাড়ে কিনা জেনে নিনঃ আমাদের হাড়ের উচ্চতা ততদিনই বাড়ে যতদিন পর্যন্ত লম্বা হাড়ের শেষ মাথায় অবস্থিত তরুণাস্থি বা প্লেটটি হাড়ের সঙ্গে মিশে না যায়। যৌবনপ্রাপ্ত হলে হরমোনের প্রভাবে এই প্লেট মূল হাড়ের সঙ্গে মিশে যায় বা ফিউশন হয়ে যায় এবং এরপর আর হাড় লম্বায় বাড়তে পারে না। সাধারণত এই ফিউশন ঘটে ছেলেদের বেলায় ১৬ বছর ও মেয়েদের ১৪ বছরের মধ্যে। যদিও ১৯ থেকে ২১ বছর পর্যন্ত আরো কিছুটা উচ্চতা বৃদ্ধি হতে পারে তবু ফিউশন হয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসা করলেও তেমন কোন ফল হয় না।

sabrinmasom  আপন আলোয় আলোকিত হতে চাই

গুণী

এটা একটা মানসিক সমস্যা। মনে করূন আপনি অনেক লম্বা। আলহামদুলিল্লাহ বলুন,নিজেকে সুখী মনে হবে


অথবা,